রোহিঙ্গার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার!

0
10
article_top

মোহাম্মদ রফিক ওরফে সোনা মিয়া (২৪) নামে এক ব্যক্তির গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে কক্সবাজারের টেকনাফ থানার পুলিশ। মৃত্যু ব্যক্তি টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপের উত্তর জালিয়াপাড়ার সোলতান আহমদের ছেলে। মোহাম্মদ রফিক ১০-১২ বছর ধরে বেড়িবাঁধের ওপর পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

আজ শনিবার সকাল নয়টার দিকে শাহপরীর দ্বীপ জালিয়াপাড়া ঝাউবাগান থেকে রফিকের গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত লাশটি উদ্ধার করেছে টেকনাফ মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জামশেদ।

article_inline

রফিকের স্ত্রী দিলদার বেগমের দাবি, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে নাফ নদীতে মাছ শিকার করে কোনো রকমে সংসার চালাতেন তিনি। প্রায় এক বছর ধরে নদীতে মাছ শিকার বন্ধ থাকায় অভাবের যন্ত্রণায় খেয়ে না-খেয়ে দিন যাপন করে আসছিলেন। গত রাতে ছেলে মোহাম্মদ আমিন (৬) ও ছৈয়দুল আমিন (৪) ক্ষুদার জন্য কান্নাকাটি করে। ছেলেদের মুখে খাবার দিতে না পেরে তিনি রাত ১০টার দিকে কাঁকড়া শিকারের কথা বলে বের হন। রাতে আর ঘরে ফেরেনি। আজ সকালে স্থানীয় লোকজনের কাছে গলায় ফাঁস লাগানোর খবর পান। মানুষের ধারণা, অভাবের যন্ত্রণায় হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেন। 

পুলিশ সূত্র জানায়, সকাল সাতটার দিকে নাফ নদীর তীরে শাহপরীর দ্বীপের জালিয়াপাড়া ঝাউবাগানে এক ব্যক্তির গলায় ফাঁস লাগানোর খবর দেন স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ফজলুল হক প্রথম আলোকে বলেন, মারা যাওয়া ব্যক্তি একজন পুরোনো রোহিঙ্গা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শ্রমিক হিসেবে বিভিন্ন নৌযানে মাছ শিকার করতেন।

article_bottom

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here